গলা কাটার ‘সৌদি’ তরিকা

১৫০০ বছর আগে মানুষ ঘোড়ার পিঠে চড়ে ঢাল-তলোয়ার নিয়ে যুদ্ধ করত, তখন তলোয়ারের কোপে মৃত্যুদণ্ড ই ছিল স্বাভাবিক, কারণ মানুষ এতে অভ্যস্ত ছিল । এখন কি সেই ঢাল- তলোয়ারের যুগ আছে নাকি ?? সময়ের সাথে সাথে মানুষ আরো উন্নত মন-মানসিকতার সাথে পরিচিত হইতেছে, ১৫০০ বছর আগের জীবন যাত্রা চিন্তা চেতনার সাথে এখনকার মানুষের চিন্তা চেতনার আকাশ-পাতাল তফাত।

”মানুষের জন্য ধর্ম, ধর্মের জন্য মানুষ না ” … মানুষের আবেগ কে কোনও ধর্ম পাশ কাটাইতে পারে না, এটা ধর্মের উদ্দেশও না। ইসলাম সবচাইতে যুগোপযোগী ধর্ম। একমাত্র এই ধর্মের পক্ষেই সময়ের সাথে ‘আডাপ্ট’ করা সক্ষম, যে কারনে ‘ইজমা’ আর ‘কিয়াস’ এর সৃষ্টি । ধর্মের সবচাইতে বড় সমস্যা হচ্ছে আমরা অনেক সময় অনেক কাস্টম বা প্রথা কে ধর্মের সাথে ‘গুলায়া’ ফেলি, এরপর এক্সময় সেগুলাকে ধর্মের চাইতেও বেশি গুরুত্তের সাথে নিতে শুরু করি, চিন্তাও করি না যে এর উতপত্তি টা কোথায় আর এটা আমাকে কোথায় নিয়ে যাচ্ছে। ‘মৌলবাদ’ এর সুচনাও হয় এখান থেকেই … কোন যায়গায় লেখা আছে যে শুধুমাত্র খোলা রাস্তায় মানুশের সামনে তলোয়ারের কোপেই মারতে হবে, অন্য অন্য কোনও ভাবে করলে জায়েজ হবে না ???

বাংলাদেশে সউদি রাষ্ট্রদূত দম্ভভরে বলসে, একজন মানুষকে মারার জন্য পুরো এক গ্রামের সবার গলা কাটা যেতে পারে, এটা কোনও সুস্থ স্বাভাবিক মানুষের কথা ?? এই সেম কথাটা সে ইউরোপ- আমেরিকায় সবার সামনে দাঁড়াইয়া বলতে পারবে ???

একজন মানুষকে ৮ জন পিটাইয়া মারে না, এটা কোনও যুক্তিযুক্ত কথাও না। আমি যতদুর জানি মারামারির মধ্যে সে মারা গেছে।যার ‘ব্লো’ তে মারা যায় সে হচ্ছে মারডারার’, আর বাকিরা হয় ‘খুনের ‘সহচর’ বা ‘ Accomplice’ . একটা খুনের জন্য ‘ Murderer’ আর ‘ ‘Accomplice’ সবার ই কি একই শাস্তি হতে পারে ?? সৌদি বিচার ব্যবস্থার উপর কতখানি আস্থা রাখা যায় ?? এমনকি এদের লাশ ও ফেরত দেয় নাই, এইটাও কি ধরমে লেখা আছে নাকি ??

কিছু কিছু বাঙ্গালির দেখি সৌদিদের চাইতেও সৌদি বিচার ব্যবস্থায় আস্থা বেশি। সৌদি ছাড়া পৃথিবীর আর কোনও দেশে প্রকাশ্যে গলা কাটার বিধি নাই, তাই বলে কি তারা সবাই বিধর্মী হয়ে গেছে ? গলা কাটা কি ‘শরিয়তি’ রীতি নাকি ‘অয়াহাব’ ই রীতি সেটাও আসলে জানা দরকার।

আমি কখনই শাস্তির বিপক্ষে নই। অপরাধ করলে তাকে অবশ্যই শাস্তি পেতে হবে। কিন্তু ইসলাম আমাকে শিখায় অন্ধভাবে কোনও কিছু অনুসরণ না করতে, নিজের বিচার-বিবেচনা, চিন্তা শক্তি কে কাজে লাগাতে । আমি আমার বিবেচনা বোধ কে কাজে লাগাতে চাই, আপ্নাদের টা আপনাদের যার যার নিজের বিবেচনা। ধর্মে শাস্তির বিধান রাখা হয়েছে যাতে শাস্তি দেখে ভয় পেয়ে অপরাধী অপরাধ করা থেেক বিরত থাকে। কিন্তু প্রতি বছর যেখানে ‘গলা কাটার’ পরিমান বেড়েই চলেছে, তখন বোঝাই যায় নিশ্চয়ই সিস্টেমে কোনও সমস্যা আছে, গলা কাটাই এর একমাত্র সমাধান না।

একই অপরাধে ‘বাংলাদেশী’ অথবা সোমালিয়ান হলে গলা কাটা হবে, আর সৌদি প্রিন্স বা কোনও ‘ ইওরপিয়ান/ আমেরিকান’ করলে আদর করে ছেড়ে দেয়া দেয়া হবে, এটা কি  ধর্মের নিয়ম ? ‘ একই অপরাধে একজনের ‘শাস্তি’ আরেকজনের চিন্তাবিহিন ‘স্বস্তি’ ! হাস্যকর ! সৌদিতে এখন ‘আল্লাহর হুকুম’ কায়েম করতেও ‘ ইউরোপ/ আমেরিকা’ র সামন্ত প্রভুদের ‘অনুমতি লাগে !! এটা তো আরো ভয়াবহ অবস্থা …।

|

২১ টি মন্তব্য : “গলা কাটার ‘সৌদি’ তরিকা”

  1. রাজীব (১৯৯০-১৯৯৬)

    বাদশাহ ফয়সাল রে মারার জন্য তার ভাতিজার কল্লা কাটা হইছিল। যদিও বাদশাহ তারে মাপ কইরা দিছিল। এইখানেও শালারা যারে মারা হইছে তার ইচ্ছার মর্যাদা রাখে নাই।
    আর যূগযোপযোগী কোন ধর্ম নাই। পৃথিবীর কোথাও তাই ইস্লামি রাষ্ট্র নাই।
    ঐ সউদি হারামিটারে কান ধইরা আমাদের দেশ থিকা বাইর কইরা দেওা উচিত।


    এখনো বিষের পেয়ালা ঠোঁটের সামনে তুলে ধরা হয় নি, তুমি কথা বলো। (১২০) - হুমায়ুন আজাদ

    জবাব দিন
  2. We always urge for justice and punishment against any sort of crime.But one must not take shelter / held responsible islam or Allah's sariah for their stupidness like the beasts of Saudi. Can they show us where in Allah has told to cut hands of the thieves who have committed that out of hunger? Let alone stablishing the sariah, they have ruined the highness of Islam and Allah's saria as well by do...

    জবাব দিন
    • রাজীব (১৯৯০-১৯৯৬)

      জনাব জাহিদ,
      আল্লাহর আইন পৃথিবীর কোন দেশে চালু আছে জানতে পারি কি?


      এখনো বিষের পেয়ালা ঠোঁটের সামনে তুলে ধরা হয় নি, তুমি কথা বলো। (১২০) - হুমায়ুন আজাদ

      জবাব দিন
      • Brother Rajib, actually the whole world is being ruled by the laws of Allah, whether we realize or not, it's immaterial if any one follows or not and really it matters nothing to HIM. More in real sense nothing is absolute in this world even the scientific equations changes in course of time. If some one expects something cent percent is there it's here after, but we shouldn't be frustrated, rather we should take the way comparatively acceptable one than others. At present though there is no icon of Islamic ruling but in the period of khelafat we found such rein to a greater extend. Now it should be our duty to self realization to come back to the track from which we have been deviated a lot and HE will establish HIS manifesto we like or dislike and want or not, no one and nothing can stop it happening just its under HIS bizarre. Thnx -- zahid.

        জবাব দিন
        • রাজীব (১৯৯০-১৯৯৬)

          জাহিদ সাহেব
          বাংলায় লিখলে প্রীত হইতাম।
          আপনি তো ভাববাচ্যে কইতেছেন ভাই।
          আমি একটা সরল প্রশ্ন করছি যে আল্লাহ র আইন কোন দেশে চালু আছে।
          নাকি প্রশ্নটা জটিল কিছু???
          তাইলে এমন ধর্মই নাযিল হইল যা নাকি টিকলো ৫০-১০০ বছর।
          মারহাবা মারহাবা।
          তাও আবার ৪ খলিফার কীর্তি নিয়া হাজারো ডাউট আছে।


          এখনো বিষের পেয়ালা ঠোঁটের সামনে তুলে ধরা হয় নি, তুমি কথা বলো। (১২০) - হুমায়ুন আজাদ

          জবাব দিন
  3. নূপুর কান্তি দাশ (৮৪-৯০)

    কোতল করার এই প্র‍থা তো নতুন কিছু না। একসংগে ৮জন দেশী ভাইয়ের প্রাণ গেলো বলেই এত খারাপ লাগছে। তালেবানরাও তো এসব বিচার ব্যবস্থা কায়েম করেছিলো।

    বাংলাদেশেও এই ব্যবস্থা চলে আসবে একদিন, বেশী দেরী নেই।
    রাষ্ট্রধর্ম রাষ্ট্রধর্ম করে লাফানো নাদানদের যদি একটু টনক নড়ে।

    জবাব দিন
    • রাব্বী (৯২-৯৮)
      বাংলাদেশেও এই ব্যবস্থা চলে আসবে একদিন, বেশী দেরী নেই।
      রাষ্ট্রধর্ম রাষ্ট্রধর্ম করে লাফানো নাদানদের যদি একটু টনক নড়ে।

      :thumbup:


      আমার বন্ধুয়া বিহনে

      জবাব দিন
    • রাজীব (১৯৯০-১৯৯৬)

      নূপুর ভাই,
      ভয়ে আছি।
      দেশে গেলে না জানি মাটিতে ফালাইয়া কতল কইরা দেয়।
      আপনিও দেশে যাইয়েন না।
      আমারে এই দেশ থিকা বাইর না কইরা দিলে দেশে ফেরত যামু না। কল্লা হারাইতে চাই না।
      ঘটনার পর থিকা অনেকেই বিভিন্ন সুরা থেকে কল্লা কাটার অজুহাত খুঁজছে। অনেকেই খুশি ইস্লামি আইনের বাস্তবায়ন দেখে। অনেকে মৃত্যুদণ্ড প্রদান করার জন্য কল্লা কাটা যে কত বৈজ্ঞানিক তার ব্যাখ্যা করতেছে।
      দুঃখ কই রাখি। পৃথিবীতে অনেক মুস্লিম দেশ আছে। কিন্তু ইস্লামি আইন ফলো করে এইরকম একটাও দেশ নাই।


      এখনো বিষের পেয়ালা ঠোঁটের সামনে তুলে ধরা হয় নি, তুমি কথা বলো। (১২০) - হুমায়ুন আজাদ

      জবাব দিন
    • অয়ন মোহাইমেন (২০০৩-২০০৯)

      রাষ্ট্রধর্ম রাষ্ট্রধর্ম করে লাফানো নাদানদের যদি একটু টনক নড়ে।

      নড়বে না ভাই। এসব গোঁড়াদের টনক কখোনোই নড়বে না। তারা আরো সস্তা যুক্তি দাঁড় করাবেই আর তাদের হাতে মারা পড়বে বিদ্রোহীরা।

      আমি সাধারণত খুবই আশাবাদী মানুষ কিন্তু মানুষের বর্তমান মানসিকতা দেখে বলতেই হয় "আসে দিন খারাপ"।

      জবাব দিন
  4. অয়ন মোহাইমেন (২০০৩-২০০৯)

    কিছু কিছু বাঙ্গালির দেখি সৌদিদের চাইতেও সৌদি বিচার ব্যবস্থায় আস্থা বেশি।

    এই কিছুর প্রভাবটা ফেসবুকে হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছি। আফগানিস্তান হতে মনে হয় না খুব বেশি দেরি আছে আমাদের।

    জবাব দিন
  5. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    আমাদের পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের কাজ দেখলে মনে হয় তারা পর-রাষ্ট্রের স্বার্থ রক্ষায় ব্যস্ত।

    আর প্রকাশ্যে এ ধরনের পাশবিক শাস্তি প্রথার বিরোধিতা করা কি পুরো ইসলামের বিরোধিতা করা? ঘটনা অনেকটা সেরকম হয়ে দাড়িয়েছে। এ নিয়ে মানুষের মনভাব দেখে মনে হলো যে ভবিষ্যতে এমন একদিন আসবে যখন জুম্মার পরে বায়তুল মুককারম মসজিদ থেকে বের হয়ে সবাই ঢাকা স্টেডিয়ামে জড়ো হবে, সেখানে মৃত্যুদন্ড প্রাপ্ত আসামীদের এভাবে শিরচ্ছেদ করা হবে। সেই প্রদর্শনী উপভোগ করে সবাই বাড়ি ফিরে আরাম করে গরম গরম ভাত খাবে আর পরিবারের বাকিদের কাছে তার গল্প শোনাবে, বলা যায় না, দু একটা টিভি চ্যানেল আবার স্টেডিয়াম থেকে লাইভ টেলিকাস্টও করতে পারে।


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  6. প্রথমে ব্লগ লেখক কে ধন্নবাদ জানাই তার মত প্রকাশের জন্ন। আপনি বলেসেন "ইসলাম সবচাইতে যুগোপযোগী ধর্ম। " । তাহলে আমি এটা মনে করতে পারি জে আপ্নি ১৫০০ বসর আগে নাজিল হওয়া কোরান শরিফ ও বিশ্শাশ করেন। মৃত্তুর বদলে মৃত্তু এটা কোরান শরিফের নিয়ম। আর হাদিস শরিফে কিতাল বিশয়ক গ্রন্থে এর প্রনালি শম্পরকে ব্যাখ্খা আছে।ইজমা কিআস শুধু সেসব বিশয়ে প্রজজ্জ জে ব্যপারে কোরান হাদিসে কোনো ব্যখ্খা নাই। সুতরাং মুস্লিম হলে আপ্নাকে এই নিয়ম মান্তে হবে। এক শ্রেনির লক এটা নিয়ে বিভ্রান্তি ছরাচ্ছে এবং ইস্লাম ও কুরানের নিয়মের বিরুদ্ধে অনেক কথা বলসে । আশা করি এশব বিভ্রান্তিতে ভ্রান্ত না হয়ে সঠিক বিশয়টি জেনে নিবেন । ধন্নবাদ।

    জবাব দিন
  7. কিছু মানুষ RAB, PULISH,দেখলে ভয় পায় কারণ সে হয়্তো আসামী।

    অনুরুপ কিছু মানুষ ইসলাম কে ভয় পায় কারণ ইসলামের আইন অনুযায়ী চুরি করলে হাত কাটা যাবে। হত্যা করলে শিরোচ্ছেদ হবে। ব্যাভিচার করলে প্রস্তর নিক্ষেপে হত্যা করা হবে।

    ইসলামের এই বিষয় গুলি চোর্, ডাকাত্, ব্যাভিচারী ছাড়া কেউ অপছন্দ করেনা।

    ইসলামের বিপক্ষে যারা ওকালতি করে তারা নিজেকে কি প্রমান করতে চায়্?

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।

:) :( :P :D :)) :(( =)) :clap: ;) B-) :-? :grr: :boss: :shy: x-( more »

ফেসবুক মন্তব্য