সময়ের ভালোবাসা

কেমন করে সময় গুলো যেন ফুরিয়ে যাচ্ছে

কারন সময় কারো জন্য কখনো অপেক্ষা করে না,

আমি তাল রেখে জোড় করে কদম মিলাচ্ছি

আথচ বারে বারে তাল বেতাল হয়ে যাচ্ছি।

 

রাস্তার পাশে বসেছে উষ্ণ চায়ের আড্ডা

আথচ আমি আজ তার স্বাদ নিতে ভুলে গেছি,

এক সময় মন প্রাণ ছুটে যেত কবিতায়

আজ কবিতার কথায় নষ্টালজিক হয়ে গেছি।

 

মাঝে মাঝেই মন ভেসে যায় পদ্মা- মহানন্দার তীরে

আমার গাঁয়ের মাঠে-ঘাটে আলোর ধারে ধারে,

এখন দেখি দেহটা যেন আষ্টে পৃষ্টে আটকে গেছে

ধীরে ধীরে শিকর গজিয়ে গেছে।

 

মাঝে মাঝেই মনে হয় বয়সটা যেন থেমে গেছে

বনসায়ের মত কোন এক বামনের জীবন কাটছে,

হায় মোম জ্বলে জ্বলে নিঃশেষ হয়ে যাচ্ছ

কতশত আন্ধকার জীবনে আলো ছড়াচ্ছ।

 

স্পর্শ কাতর মন ঘৃণায় ঘৃণায় স্থবির হয়েছে

নির্লজ্জের মত লজ্জাই এখন ভুষন হয়েছে,

অল্প তুচ্ছ ঠান্ডা আজ বরফ হতে চলেছে

অমন কম্বল খানি উষ্ণ করতে ব্যর্থ হয়েছে।

 

আগন্তক পাখিরা সকলকে কতই না আনন্দ দিচ্ছে

অথচ আমরা বুঝিনা শীতের তীব্রতায় তারা গৃহ ছেড়েছে,

হায় পথ তুমি আজ জীবনকে কোন পথে নিয়েছো

শ্বেত শুভ্র জীবনকে তুমি কৃষ্ণ কালো করে ফেলেছো।

 

ভালোবাসার তীক্ষ্ণতার ধার এখন ভোতা হয়ে গেছে

ভালোবাসার তীব্রতা বুঝাতে সব ব্যর্থ হয়েছে,

সে বলে কি ভালোবাসা জীবন থেকে চলে গেছে?

না, ভালোবাসা যেমন ছিল, ভালোবাসা তেমনি আছে।

৮৪৯ বার দেখা হয়েছে

১টি মন্তব্য “সময়ের ভালোবাসা”

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।

ফেসবুক মন্তব্য