ঘূন ধরেছে!

ঘূন ধরেছে!
ঘূন ধরেছে!

যদি অহেতুক্ মনে হয় জীবনের পথচলা,
যদি অপারগতায় ঢাকে কতর্ব্যের চাঁকা,
যদি অপরের মতামত মনে হয় অযথা,
যদি অপমান মনে হয় সমালোচনা,

তবে জেনে রেখো মগজে ঘূন ধরেছে!
নিলয়ের শ্যাওলারা নড়েচড়ে উঠেছে!!
ঘূন ধরেছে!
ঘূন ধরেছে!

বাপ্পী খান

বিস্তারিত»

তখনও জানতে বাঁকী

তখনও জানতে বাঁকী

তখনও জানতে বাঁকী, তুমি আর আমি,
কার চেয়ে কে বেশী, কাকে ভালবাসি?
এখন আর তখনের জীবনসীমায়,
তোমার ছলনাগুলো এখনো কাঁদায়।।
তখনও জানতে বাঁকী, তুমি আর আমি,
কার চেয়ে কে বেশী, কাকে ভালবাসি?

প্রথম যেদিন তুমি ভালবেসেছিলে,
প্রবল সুখে এ চোঁখ ভরা ছিল জলে।
প্রথম যেদিন তুমি বিদায় জানালে,
ব্যাথায় ভরা দুটি চোঁখ ভরেছিল জলে।

বিস্তারিত»

কে আসলে দেশের কথা ভাবে??

আমরা হয় “A”লীগ বা “B”দল এর লোক। কিন্ত কজন আমরা বুকে হাত রেখে বলতে পারি, যে, আমরা আসলে কোন কারো দায়বদ্ধ নই। নিরপেক্ষতার সংজ্ঞা বুঝি এভাবেই বদলে যাবে। আমিও কিন্ত নিরপেক্ষ নই। আমি শুধু আমার কলিজা আর পরানের পরাণ বাংলাদেশের পক্ষে। দেশে জন্য ক্ষতিকর সব কিছুই আমার জন্য বিরক্তিকর। আর দেশের জন্য সুখকর সবটাতেই আমার নিখাদ আনন্দ। আজকাল আনন্দিত হতে পারি না, বিরক্তিতে BP 100-140,

বিস্তারিত»

সবই দেখি তা না-না-না!

জাত গেল জাত গেল বলে
একি আজব কারখানা
সত্য কাজে কেউ নয় রাজি
সবই দেখি তা না-না-না।

লালনের গান বা তার দর্শন বোঝার ক্ষমতা হয়ে ওঠেনি পুরোপুরি। কিন্তু কিছু কিছু গানের কথা মাঝে মাঝে দারুন ভাবে প্রভাবিত করে। এই গানটা তার মাঝে একটা। ইদানিং কালে আমাদের ধর্মানুভূতির নাজুকতা দেখে। গানের মূল ভাবের সাথে সেটা কত দূর যায় জানি না, তবে বিশেষ করে প্রথম চার লাইনের সাথে খুব মিল পাই।

বিস্তারিত»

জীবনের মানে…………………

জীবনের মানে
————-
————-
কথাঃ বাপ্পী খান
সুর-সংগীতঃ আইউব বাচ্চু
শিল্পী-ব্যান্ডঃ এল.আর.বি
এ্যালবামঃ ডাবল এ্যালবাম (১৯৯২)
——————————-
——————————–

জীবনের মানে আমি পাইনিতো খুঁজে,
আমার দুচোখ তাই অভিধান খোঁজে।
আমি সারাদিন যারে কাছে পাই,
জানতে চেয়ে পাইনা জবাব ফিরে চলে যাই।

একদিন দেখা হলো সময়ের সাথে,
একটি প্রশ্ন আমি রেখেছিনু তারে।

বিস্তারিত»

চট্টগ্রাম-ঢাকা-চট্টগ্রাম

এবারের ঈদ ছিল আমার জন্য ঘুমানোর ঈদ। চাকরীর বিড়ম্বনায় ভোর পাঁচটায় দিন শুরু করে তারপর প্রায় পুরোদিনই ঘুমিয়ে কেটেছে। ঈদের পরের দিন বেশ অপ্রত্যাশিতভাবে ছুটি পেয়ে যাওয়ায় তড়িঘড়ি করে ছুটলাম বাস কাউন্টারে। উদ্দেশ্য প্রথম যে বাস পাবো সেটা চড়েই ঢাকায় যাত্রা। ভাগ্যে মিললো এমন এক বাস যার সড়ক পথেই উড়িয়ে নিয়ে যাবার বিশেষ সুনাম(?) আছে। শেষবার এই বাসে চড়েছিলাম প্রায় ১০ বছর আগে, সেবারো ঈদের পরের দিন,

বিস্তারিত»

আহ, হিপোক্রেসি!

ব্যক্তিগত ভাবে মানুষের যে দোষগুলিকে সবচেয়ে বেশি ঘৃণা করি তার তালিকায় হিপোক্রেসি একদম উপরের দিকেই থাকবে, সে কারনে সব সময় চেষ্টা করে এসেছি নিজেকে এর মুক্ত রাখতে এবং এই দোষে দোষান্তিত মানুষদের থেকে দূরে থাকতে। কিন্তু এর কোনটিই শতভাগ অর্জন করা সম্ভব হয়নি। নিজে হিপোক্রেসি মুক্ত থাকার আপ্রান চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি, কিছুটা হয়ত সফল ও হয়েছি কিন্তু হিপোক্রেটদের থেকে দূরে থাকার প্রচেষ্টায় রীতিমত ব্যর্থ। বাস্তব জীবনে বিভিন্ন অনিবার্য কারনে অনেক হিপোক্রেটদের সাথেই হাসি মুখে কথা বলতে হয় আর ভার্চুয়াল জগতে বন্ধু তালিকায় ছাকনি চালাতে চালাতে ঠগ বাছতে গা উজাড় হবার উপক্রম হলেও খোমাখাতা হিপোক্রেসি ভরপুর।

বিস্তারিত»

সাড়ে তিন হাত মাটি

সাড়ে তিন হাত মাটি
——————————
কথাঃ বাপ্পী খান
সুর-সংগীতঃ আইউব বাচ্চু
ব্যান্ডঃ এল আর বি
এ্যালবামঃ আমাদের বিস্ময়(১৯৯৭-৯৮)
——————————–

টাকা-কড়ি ধন-সম্পত্তি,
অনেক অনেক বাড়ী-গাড়ী।
ঠিকানার ছড়াছড়ি,
আমি তুমি বাড়াবাড়ি।
মরলে সঙ্গে যাবে না,
কোন কিছুই তোমার অংশীদারী।
ঠিকানা শুধু এক সমাধী,
সাড়ে তিন হাত মাটি।।

সংসারে যুদ্ধ চলে,

বিস্তারিত»

গতকাল রাতে

গতকাল রাতে

গতকাল রাতে বিবেক আমার,
স্বপ্নের কড়া নেড়ে করলো জিগ্গেশ্,
“আমায় ছাড়া আর কতদিন রবে?”
গতকাল রাতে…………………

জানালার পাশে বুদ্ধি আমার,
দুষ্টু হাসির সাহেব
চাইলো ফেরত সবটুকু তার
দেনাপাওনার হিসেব।।
গতকাল রাতে…………………

কানর্িশ থেকে হুশিয়ারি দিয়ে,
বললো আমার প্রেম,
“নষ্ট করোনাকো পবিত্রতা,
শেষ বার শুধালেম!”।।
গতকাল রাতে………………..

বিস্তারিত»

একজন পথচারী ও আমিত্ব

এই শুয়ো……. একটা বাজে গালি দিয়ে তার সাথে আরও কিছু…. অকথ্য খিস্তি কেটে গাড়িটাকে এক পাশে সাইড করে রাখলাম। হাইওয়ে রাস্তা এবং যথেষ্ট ফাঁকা থাকার দরুন গাড়িতে মোটামুটি একটু স্পীড দিয়ে ফিরছি আমার গন্তব্য-স্থলে। হটাৎ একজন মাথা নিচু করে পথচারী কোন দিক বিদিক খেয়াল না করে রাস্তা পার হচ্ছে। আমি যথা সম্ভব হর্ন দিয়ে, হেডলাইটের লো-বিম, হাই-বিম দিয়ে সাবধান করতে চাইলাম কিন্তু অল্পের জন্য রক্ষা।

বিস্তারিত»

ছদ্মবাস

এখানে ইচ্ছাগুলো বাক্সবন্দী
বেঁচে থাকা টা কেবল ই ফন্দি।
এখানে ভরদুপুরে আঁধার নামে
ভগবান থাকে নামে -বেনামে।
এখানে রক্ত নেশা রন্ধ্রে রন্ধ্রে
মুখোশ বসানো সবার স্কন্ধে।
এখানে ভোর হয় শুধু রাতের অপেক্ষায়
সর্প নাচে গরুরের ছায়ায়।
এখানে কপটতা গুলো রাখা রাশি রাশি
এখানে তুমি আমি নেই আজো পাশাপাশি।

বিস্তারিত»

গন্তব্য

এক

তিন টাকা দামের চা আর দুই টাকার ঠোঙা চিনাবাদামের দিন ফুরিয়ে গেছে, এককাপ চায়ের দাম এখন পাঁচ টাকা। অথচ সেই অনুসারে আয় বাড়েনি, রিক্সা ভাড়া বেড়েছে, সবজী-মাংস-মাছের দাম বেড়েছে, বাড়ি ভাড়া বেড়েছে এমনকি পতিতার রেটও বেড়েছে।
সিগারেটে টান দিতে দিতে দেশ ও জাতির জন্য দিল-দরিয়া ভেবে ছারখার করে দিল আলম। উরুর ফাঁকায় আপতত চুলকাচ্ছে, অথচ সামনে একজন হুজুর বসে বসে চা খাচ্ছেন,

বিস্তারিত»

একটি নিয়ন সাইন ও কিছু কথা

একটি নিয়ন সাইন ও কিছু কথা

নিয়ন সাইন

দোস্ত “ উত্তরা এয়ারপোর্ট গোল চক্করের সাথে পুলিশ বক্সের পাশে গাড়ীটা পার্ক করিস। আমি ঐখানে চলে আসবো।“
গাড়ীটা পার্ক করতেই জেনারেটর এর বিকট শব্দের উৎস খোঁজার জন্য এদিক ওদিক তাকালাম। ফুটপাথের মধ্যে দেখতে পেলাম জেনারেটরটি। একটু হলেও আমাকে নাড়া দিল। জেনারেটরটি বিশাল এক নিয়ন সাইনের পাশে এবং খোলা আকাশের নীচে রাখা।

বিস্তারিত»

দেবীর পুষ্প

ছোট্ট বাগিচা আমার
জোটে কালেভদ্রে ফুল,
মালার জন্য সামান্য সে ।
ফুল সে কভু হয়না মালা
পায় না শোভা দেবীর গ্রীবায়।

তবু ফুল হয়ে রয় দেবীর পায়ে।

বিস্তারিত»

জেগে ওঠো বীর

জেগে ওঠো বীর
এসো এসো রণবীর!
ক্ষ্যাপা প্রলয়ে ভেঙ্গে ফেল আজ
জীর্ণ পাতার নীড়।
শত জননীর মহা ফরিয়াদ
গুমরে ফিরে বিদীর্ণ নাদ
ক্রন্দন ঢেউ উছলিছে বাধ-কল্লোল বারিধির,
কতকাল ঘুমাবে দামাল নিশ্চুপ গম্ভীর!
জেগে ওঠো দিকপাল
জিঞ্জির পায়ে নকশি কাঁথায়
কাটিয়েছ মহাকাল।
মহা ঝঞ্ঝায় ভেঙ্গে গেছে দ্বার
অমানিশায় খেয়া পারাপার
পিশাচের ফাঁদে কাঁদে হাহাকার তরঙ্গ উত্তাল,

বিস্তারিত»