খাতা পর্ব

খাতা নিয়ে কিছু কথা…আর কিছু মনে পড়ছে না, অন্যান্য কলেজ গুলো এটাকে টেনে নিয়ে যাবে আশা করি।

সাধারণ জ্ঞান একটা পরীক্ষা হত, ফর্ম ক্লাসে। নম্বর যোগ হত না। সুতরাং এইখানে ক্যাডেটদের অপিরিসীম জ্ঞানের সুবিশাল ভান্ডারের খোজ পাওয়ার পরম সৌভাগ্য লাভ করতেন শিক্ষকেরা।

*পৃথিবীর দ্রুততম মানবী কে?

উঃ দূরদানা ফিরোজ খান ( বাঁধন আপা, ১০০মি স্প্রিন্টে ফার্স্ট)

ধর্ম খাতায় প্রায়ই বিভিন্ন মনিষীর কোটেশন খুজে পাওয়া যেত, বেশির ভাগই ইংরেজীতে। একবার এক আপার খাতা জিওগ্রাফী ম্যাডামের খুব পছন্দ হলো, এত নীট আর সুন্দর হাতের লেখার খাতা অনেক দিন উনি পাননি। ক্লাসে পড়ে শুনাচ্ছেন, হঠাৎ, “সুউচ্চ ভিসুভিয়াস পর্বতের চূড়ায় বসে আছেন মিসেস খাদিজা আক্তার…###!!!!****????” (ওই ম্যাডামের নাম, ছদ্মনাম)।

একবার প্রিটেস্টে ঘুমাতে গিয়ে ধর্ম খাতায় লিখে ফেলেছিলাম…”দুইটা ব্যাটারী সংযোগ দিলে হয় আআআ”…

১,১৯৪ বার দেখা হয়েছে

১৭ টি মন্তব্য : “খাতা পর্ব”

  1. হজ মুসলনামদের জন্য একটি গুরুত্বপুর্ণ কাজ। হজে যাবার জন্য আমাদের প্রথমে বিমানে উঠতে হয়। বিমান থেকে নীচে তাকালে অনেক সুন্দর লাগে।হজ মুসলনামদের জন্য একটি গুরুত্বপুর্ণ কাজ। হজে যাবার জন্য আমাদের প্রথমে বিমানে উঠতে হয়। বিমান থেকে নীচে তাকালে অনেক সুন্দর লাগে।হজ মুসলনামদের জন্য একটি গুরুত্বপুর্ণ কাজ। হজে যাবার জন্য আমাদের প্রথমে বিমানে উঠতে হয়। বিমান থেকে নীচে তাকালে অনেক সুন্দর লাগে।হজ মুসলনামদের জন্য একটি গুরুত্বপুর্ণ কাজ। হজে যাবার জন্য আমাদের প্রথমে বিমানে উঠতে হয়। বিমান থেকে নীচে তাকালে অনেক সুন্দর লাগে।হজ মুসলনামদের জন্য একটি গুরুত্বপুর্ণ কাজ। হজে যাবার জন্য আমাদের প্রথমে বিমানে উঠতে হয়। বিমান থেকে নীচে তাকালে অনেক সুন্দর লাগে।হজ মুসলনামদের জন্য একটি গুরুত্বপুর্ণ কাজ। হজে যাবার জন্য আমাদের প্রথমে বিমানে উঠতে হয়। বিমান থেকে নীচে তাকালে অনেক সুন্দর লাগে।হজ মুসলনামদের জন্য একটি গুরুত্বপুর্ণ কাজ। হজে যাবার জন্য আমাদের প্রথমে বিমানে উঠতে হয়। বিমান থেকে নীচে তাকালে অনেক সুন্দর লাগে।

    আমাদের মেহেদি একবার এইচারটা লাইন ২ পাতা জুড়ে লিখে দিয়েছিল।

    জবাব দিন
  2. সাধারণ জ্ঞান পরীক্ষায় প্রশ্ন আসছে- এই বছর পদার্থে নোবেল প্রাইজ কে পাইসে।

    আমাদের আসিফ লিখসিলো- জনাব আব্দুল খালেক(ছদ্মনাম)

    উল্লেখ্য এই স্যার টা A ফর্মের ফর্ম মাস্টার ছিল এবং খাতা গুলা তিনিই দেখসিলেন।

    ফলাফল= ৩*ইডি

    ****

    একবার এক বাংলা সেকেন্ড পেপার পরীক্ষার কথা।খুরশিদা ম্যাডাম খাতা নিয়ে আসছে ফর্মে।এসে বলতেসে তোমাদের ফর্ম তো জনৈক কবিতে ভইরা গেসে।
    কাহিনি কিছুইনা- বর্ষাকাল রচনায় আমি পাঁচটা কবিতার কোটেশন দিসিলাম।পাঁচটাই জনৈক কবি পরীক্ষার হলে বসে বসে লিখে দিসেন আর আমি কপি করসি।

    ধন্যবাদ।

    জবাব দিন
  3. একটা কথা মনে পরে গেলো আমরা ক্লাশ ৯ এ।একবার সাধারন জ্ঞান খাতা দিলো।হঠাত্ত করে দেখি ভি পি (the one and only)আবু সায়ীদ বিশু
    আস্লেন।এবং যথারীতি কথা " রহিম আমার বেত তা নিয়া আয়।"
    তার পরে দেখি যে দুই জন পরিচিত মুখ।
    তাদের দোষ হলো তাদের একজন লিখসে "কোন ফলে ভিটামিন কম থাকে ?"
    উত্তরঃপরিক্ষার ফল
    অন্য জন লিখসে
    "আমুক দেশের প্রধানমন্ত্রি কে?"
    উত্তরঃজনাব বিশু

    তার পরে উনারা যথারীতি ইডি।
    😉

    জবাব দিন
  4. ইফতেখার (৯৫-০১)

    আমাদের সাদ সাধারন জ্ঞান এ খুব এ ভাল ছিল ৫০/৫০ এর মতন। একবার আরেকজনের সাথে বাজী ধরসে এ পরীক্ষায় ০ পাবে। পাইসিলো ও।

    খাতা টা দেখার মতো ছিল। মনে নাই এখন আর ঠিক।

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।

ফেসবুক মন্তব্য